জাতীয়রাজনীতি

দেশে গণতন্ত্র নেই বলেই নির্বাচন হয় না : নজরুল ইসলাম

দেশে গণতন্ত্র নেই এমন মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, গণতন্ত্রের বাহন হচ্ছে নির্বাচন। সেই নির্বাচন হয় না এদেশে। জনগণ ভোট দিতে যায় না। নির্বাচনের নামে যে নোংরা খেলা চলছে সেই খেলার অংশীদার হতে রাজি নয় জনগণ। তাই তারা ভোট দিতে যায় না।

বুধবার এক দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নয়া পল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিচ তলায় দলটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দীন আহমেদ পিন্টু’র ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টুর মৃত্যু স্বাভাবিক হয়নি। রাজশাহী নেয়ার পথে পিন্টু আমাকে ফোন দিয়েছিল বলেছিল‘ভাই ওরা আমাকে মেরে ফেলবে, আমাকে কোর্ট বলেছে’ পিজিতে চিকিৎসা নিতে, অথচ ওরা আমাকে রাজশাহী নিচ্ছে। মেরে ফেলার ষড়যন্ত্র করছে ।’ তাকে রাজশাহীতে কারাগারে নেয়া হলো, তার কোনো সুচিকিৎসার ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। সে সরকারের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে অকালে মৃত্যু মুখে পতিত হয়েছে।’

এটি তো একটি ঘটনাই নয়, এমন বহু ঘটনায় আছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছি। এদেশের গণমানুষের নেত্রী, সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কিভাবে উপযুক্ত চিকিৎসা না দিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। ব্যবস্থা করতে দিচ্ছে না সরকার। গুম, খুন তো করেই যাচ্ছে। বহু সহকর্মীকে এ সরকার গুম করেছে, খুন করেছে।

পিন্টুর স্মৃতি ধারণ করে আমাদের লড়াই সংগ্রাম করতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীদের হৃদয় থেকে তাকে মুছে ফেলা যায়নি, মুছে ফেলা যাবে না। সে নিজ যোগ্যতায়, সংগ্রাম করে, মানুষের মন জয় করে নেতা হয়েছিলেন। এ ধরনের মানুষ গুলোকে নিয়ে সরকারের সবচেয়ে বেশি ভয়।

সরকারের উন্নয়নের সমালোচনা করে তিনি বলেন, খরচ বেশি হচ্ছে খালি, কাজ করলে সেখান থেকে টাকা মারা যায়। সামাজিক নিরাপত্তা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য কাজগুলো কমানো হচ্ছে।

দুর্নীতির জাহান্নাম থেকে যারা দেশকে বাঁচাতে চান তাদেরকে সাহসী ভূমিকা পালন করতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, যেমন ৭১ সালে আমরা একটা ভূমিকা পালন করেছিলাম। যারা অগণতান্ত্রিক তাদেরকে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার পরাজিত করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেন, নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টুকে হত্যা করা হয়েছে। এটা সঠিক। সরকারের একটি নীল নকশা তাকে হত্যা করা হয়েছে। কারণ তাকে কেনা যেত না। ১/১১ সময় দলের লোক সুবিধা নেয়ার জন্য অনেক কিছু করেছে। কিন্তু পিন্টু সেদিক থেকে অটল ছিলেন। তাকে টানতে পারেনি সরকার। দলের জন্য পিন্টু অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন।

মরহুম পিন্টুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন বিএনপির এই মুখপাত্র।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক ও দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা শেখ রবিউল ইসলাম রবি, এস এম জাহাঙ্গীর, ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, মৎস্যজীবি দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান আউয়ালসহ দক্ষিণের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

Show More

Related Articles

Back to top button